মালয়েশিয়াতে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর গুলো খুলে দিতে এখনই তা’ড়াহু’ড়ো করবেনা কারণ দেশে এখন প্রতিদিন কোভিড-১৯ এর আ’ক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন বলেছেন, সরকার খুলে দেয়ার পরিবর্তে সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ বাড়িয়ে দেবে, বিশেষত অবৈধ অভিবাসীদের প্রবেশের বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরি কারণ বর্ডার দিয়ে প্রবেশকারীদের মাধ্যমে কোভিড-১৯ এর ভাইরাস ছড়িয়ে যেতে পারে।

কোভিড-১৯ সংক্রামিত ব্যক্তিদের আগমন রোধে জাতীয় সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ আরও বৃদ্ধি করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মহিউদ্দিন ইয়াসিন।১৫ ই সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাত ৮টায় প্রধানমন্ত্রীর কোভিড -১৯ এর বিশেষ বার্তায় তিনি বলেন, বিনিয়োগ এবং আমদানী রপ্তানির কাজে জড়িত ব্যবসায়ী এবং শিক্ষার্থীদের উপর ক’ঠোর নিয়ম আরোপ ছাড়া বাকিদের মালয়েশিয়া প্রবেশ এখনো নি’ষিদ্ধ রয়েছে।

দেশে এখনো কোভিড-১৯ এর বিস্তার মোকাবিলায় সরকার কঠোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তবে বর্তমানে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে যা সরকারকে নতুন সিদ্ধান্ত নিতে ভাবিয়ে তুলেছে। অন্যান্য দেশ গুলোতে আক্রান্তের সংখ্যা কমিয়ে আনার চেষ্টা চালালেও এখনো কমার লক্ষ্মণ দেখা যাচ্ছেনা। আসলে বেশ কয়েকটি দেশ আবারও নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বজুড়ে জনগন যদি সতর্ক না হয়ে মহামারীকে অবহেলা করে তাহলে একই ঘটনা বারবার ঘটবে নিয়ন্ত্রণ হবেনা। মালয়েশিয়ায় করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিয়ন্ত্রণে আসলেও বর্তমানে আবারও বেড়ে গেছে। মুহিউদ্দিন ইয়াসিন বলেন, মালয়েশিয়াতে আক্রান্তের হার বৃদ্ধি পেলে সরকার আবারও পরিপূর্ণ লকডাউন বা এমসিও আবার ঘোষণা করবে।

By mk tr

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *